Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages

25 September 2017 News

বাজেট ছেঁটে দুঃস্থদের দানের ভাবনা রূপনারায়ণপুরে

৬১ বছরে পা রাখল রূপনারায়ণপুর দুর্গামন্দির সর্বজনীন পুজো৷ মণ্ডপের একেবারে সামনে থাকছে বিশাল স্বস্তিক চিহ্ন৷ পুজোর বাজেট থেকেই খানিক কাটছাঁট করে দুঃস্থ পড়ুয়াদের মধ্যে বই ও অভাবীদের শীতবস্ত্র দেওয়ার কথা ভেবেছেন উদ্যোক্তারা৷ দুর্গামন্দিরের পুজোই শুধু নয় , ছোট -বড় মিলিয়ে সালানপুর -রূপনারায়ণপুরে মোট ৪২টি পুজো হচ্ছে এ বার৷ এর মধ্যে বড় মাপের পুজো হল দু’টি৷ তাদেরই একটি ডাবড় মোড়ের দুর্গামন্দির৷ অন্যটি রূপনারায়ণপুর স্টেশন পাড়া৷ স্টেশন পাড়ার মণ্ডপে এ বার থাকছে কাপড়ের কারুকাজ৷ বারোয়ারি পুজো হলেও আজও এখানকার উদ্যোক্তারা বনেদি পুজোর আমেজ টিকিয়ে রেখেছেন এখানে৷ এই দুই পুজো ছাড়া দর্শক টানার লড়াইয়ে এগিয়ে আছে মহাবীর কলোনির দুর্গাপুজো৷ ৪২ বছরে এ বার পা দিল এখানের দুর্গোত্সব৷ চার দিকে যখন থিমের রমরমা , তখনও সাবেকি ঘরানাতেই পুজো হয় এখানে৷ ৪২ বছরে পা রাখল পশ্চিম রাঙামাটি ১ নম্বর সর্বজনীন দুর্গোত্সবও৷

পুজো কমিটির কর্তা চিত্ত মাজি ও কুন্তল দে বলেন , ‘মূর্তিতে অভিনবত্ব রাখা হচ্ছে৷ দেবীর রণমূর্তি তুলে ধরছি আমরা৷ ’ পশ্চিম রাঙামাটির এই পুজোর উদ্বোধন করবেন বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়৷ দক্ষিণের মন্দিরের আদলে মণ্ডপ তৈরি হয়েছে এখানে৷ পশ্চিম রাঙামাটিরই মহিলা মহলের পুজো আবার ১৯ বছরে পা দিল এ বার৷ নারীশক্তির আধারেই মণ্ডপ তৈরি হয়েছে এখানে৷ রূপনারায়ণপুর দেশবন্ধু পার্কের মণ্ডপ আবার তৈরি হয়েছে ঝুড়ি , কুলো , মাদুর দয়ে৷ এ বছর এই পুজো ২৪ বছরে পড়ল৷ প্রতিমাও আকর্ষণীয় এখানে৷ রূপনগরের পুজো ২৬ বছরে পড়ল এ বার৷ দীর্ঘ দিন থিমের পুজোই হচ্ছিল এখানে৷ সেই ধারা ভেঙে এ বার ফের সাবেকিয়ানায় ফিরেছেন উদ্যোক্তারা৷ শুধু সালানপুর নয় , আশপাশের অনেক এলাকার দর্শনার্থীদের ভিড় হয় এই পুজোয়৷ ১৮ বছরে পা দিল পিঠাকেয়ারি সর্বজনীন পুজো৷ পুজোয় রোজ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন থাকছে এখানে৷ বিশেষ আকর্ষণ আদিবাসীদের অনুষ্ঠান৷ প্রতিবার পুজোয় চমক লাগায় সীমান্তপল্লির নিজস্ব দুর্গামন্দির৷ ব্যতিক্রম নয় এ বারও৷ পুজো উপলক্ষে সেজে উঠেছে চত্বর৷ ৩৪ বছরের এই পুজোয় বনেদিয়ানা থাকছে একশো শতাংশ৷ ৩৪ বছরে পা দিল আমডাঙা সর্বজনীন৷ আলোকসজ্জা ও প্রতিমা দুই ক্ষেত্রেই অভিনবত্ব থাকছে এখানে৷ অরবিন্দনগর সর্বজনীনের এ বারের থিম গ্লোবার ওয়ার্মিং৷ ১৭তম বর্ষে মণ্ডপ সাজানো হচ্ছে হোগলাপাতা দিয়ে৷ এ ছাড়াও উল্লেখযোগ্য ফকরাডি সর্বজনীন , বনজেমারি কোলিয়ারির পুজো , মেমারি আল্লাডির পুজো , আছড়া ষোলো আনা , কল্যাণগ্রাম , মালবহাল , নেতাজি কলোনি , প্রান্তপল্লি , শান্তশ্রীপল্লি ও জোড়বাড়ির পুজো৷

Source: Eisamay